গঙ্গা তোর আঁচল হলো ময়লা

বটু কৃষ্ণ হালদার

ওরে,

গঙ্গা রে তোর জলের ধারায়,কোটি ধানের চাষ।

তবু কেন তোর বুকে আজ ভাসছে হাজার লাশ?

তোরই বুকে ডুব দিয়ে মন, সন্ধ্যা,সকাল,দুপুর

বালি ঢাকা লাশ গুলো সব,খাচ্ছে ছিঁড়ে কুকুর।
ভাসছে যারা এমন ভাবে,তারা কি দেশের মানুষ নয়?

বনের হিংস্র পশু নয় আজ,কান্ডারীদের লাগে ভয়।

মানব আজ দানব সাজে,বিকিয়েছে মানবিকতা

আপন স্বার্থে নিজের হাতে,সাজিয়েছে সব চিতা।

সত্যি কি তাই ভোট দিয়ে ,করেছি সবাই ভুল

ওরা বোকা মরছে মরুক,আমরা তো মশগুল।

ক্ষমতার দাম্ভিকতায় চলছে হানাহানি

ওরা পেল গদি,আর গরিবের ঝরে পানি।

ভাই ভাইয়ের রক্ত ঝরিয়ে,সাজবে ওরা রাজা

রাজার পাতে চিকেন কাবাব,শুকিয়ে মরে প্রজা।

জীবন খানি বাজি রেখে আমরা দিচ্ছি ভোট

আমরা পড়বো ছেড়া জামা ওদের গায়ে কোট।

পাশার বাজী চলবে আবার,নির্বাচনকে ঘিরে

কোন সকালে ছেলেটি গেল,আসেনি আর ফিরে।

যাদের দয়ায় মালিক তোমরা,টানছ বসে রথ,

ভোটের মালিক দাড়িয়ে দেখে,তাদের ডুবছে স্বপ্ন ও ভবিষ্যত।

গঙ্গা_রে তোর আঁচল খানি ময়লা হলো আজ

ভোট পর্ব আসবে যাবে,তবু ও  বলবে ওরা, 

“সাজ রে ওরে সাজ”।

Spread the Kabyapot

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *