গঙ্গা
শচীদুলাল পাল

বিগলিত গতি তরলিত মতি উচ্ছল স্রোতধারা,
নৃত্যের তালে নাচো কালে কালে যেন বন্ধন-হারা।
মেটাও পিপাসা মনে দাও আশা
তুমি অনন্যা জানি,
তুমি গরীয়সী হৃদে তারা শশী
মহাভারতের রানী।
অচল বাসীনি কলকল ধ্বনি
বয়ে চলো নিরবধি,
পবিত্র জলে দেবদেবী দলে
পূজিত আজ অবধি।
শহর নগর তব তট’পর
তোমার দয়ার দান,
স্নান করি জলে পাপ যায় চলে
দেহেতে জুড়ায় প্রাণ।
ভগিরথ টানে এসেছ এখানে বাঁচাতে প্রাণের ধারা,
ব্রহ্মার ঘটে ছিলে মাথা কুটে
ধরাধামে পেলে ছাড়া।
গঙ্গাসাগরে জনতায় ভরে তোমারি পূজার লাগি,
তোমার দয়ায় ভগিরথ ভাই
সকলে উঠিল জাগি।
কাশি বারানসি তব পাশে বসি
হয়েছে পূণ্যভূমি,
কলকাতাবাসী কত তারা খুশি
তোমার চরণ চুমি।
পৌষে মকরে গঙ্গাসাগরে
নামে জনতার ঢল,
তব জলে ডুবে সুখী হয় ভবে
ফিরে পায় মনোবল।
কত রোগব্যাধি ছেড়ে যায় কাঁদি
জলের পরশ পেয়ে,
তুমি জাহ্নবী প্রাণময় ছবি
প্রাণ ওঠে জয় গেয়ে।

Spread the Kabyapot

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *