কবি পরিচিতি:

 মনীষা বন্দোপাধ্যায় : কবি মনীষা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাবার হাত ধরে খুব ছোট বেলায় সাহিত্য জগতে প্রবেশ।কবিমন, মনের ময়ূরপঙ্খী, শব্দের ঝংকার, প্রভৃতি বিভিন্ন পত্রিকায় নিয়মিত লেখেন। প্রকাশিত কাব্য গ্রন্থ চলার পথে,ও পরাণের পদ্মবনে। একাধারে লেখেন ছোটগল্প ও নাটক।তার সব কবিতা জীবনের কথা বলে।লেখার স্বচ্ছতা তার কবিতার মৌলিক সুর।

কবিতা : একটি প্রেমের কবিতা

কলমে : মনীষা বন্দ্যোপাধ্যায়

তোকে নিয়ে আজ লিখবো কবিতা

সিগারেটে টান দিয়ে

হঠাৎ পাখিটা বলে গেল এসে

কাল নাকি তোর বিয়ে।

শোনা মাত্র বুকের ভিতর

রেল ঝমঝম শব্দ

হাজার কষ্ট দলা পাকিয়ে

যদিও তা নিস্তব্ধ।

এইতো সেদিন পার্কে বসে

মুখোমুখি শীত সন্ধ্যায়

তুই এসে ছিলি রোমশ বুকে

স্বপ্ন রজনীগন্ধায়।

তোর ঠোঁট ছুঁয়ে কত না কাব্য

জেগেছিল হৃদি মাঝে

ঠিক তখনই বৃষ্টি নামল

বজ্র গভীর সাজে।

গায়ে কাঁটা দেওয়া শীতের কামড়

ভুলেছি তখন দোঁহে

বুকের মাঝে নরম  তিতির

বু্ঁদ হয়ে গেছি মোহে।

বলেছিলি বটে ব্যাংকে চাকুরে

খুঁজছে একটা মেয়ে

বিবাহ যোগ্যা ,বুঝিনি তুই

ভুলে গেলি সব পেয়ে।

ভাগ্য আমার ভালো বটে তবু

পাইনি নিমন্ত্রণ

বুক ভেঙে যেত যদি দেখাতিস

শুভদৃষ্টির ক্ষণ।

বড় সাধ ছিল তোর দুচোখে

এঁকে দেব কোটি প্রেম

বেকার ছেলের স্বপ্নদেখার

সবটাই প্রবলেম।

চোখের সামনে ভাসছে তোর

হাসিমাখা কত ছবি

একবুক  প্রেম শূণ্য পকেট

আমাকে বানালি কবি।

রাত পোহালে অন্য সকাল

জানালো হয়েছি পর

বেনারসী শাড়ি এক গা সোনা

বাঁধ তবে তুই ঘর।

খুড়কি ভাঙার সময় হলো

পড়ন্ত বারবেলায়

কৌমার্য তুই ভাঙবি কবার

তাই ভেবে হাসি পায়।

বৃষ্টি এখন নামছে দুচোখে

চন্দন ধোয়া সন্ধ্যা

সেদিন ছিলাম সুজলা সুফলা

আজ মনমাটি বন্ধ্যা।

*************************

Spread the Kabyapot

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *